গুগোল কেন শুভংকরের ফাকি- বিসিএস নিয়ে লিখবো ভাবছি

আপাতত আমরা অন্যান্য বিষয়গুলো বাদ দিয়ে শুধু বিসিএস নিয়ে নিয়মিত বাংলা টিউটোরিয়াল প্রকাশের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা কথাটি না বলে আমি বলা উচিত। সময়ের প্রয়োজনে আমাকে বিসিএস এর প্রস্তুতি নিতে হচ্ছে একটি সরকারী চাকরি পাওয়ার জন্য এবং আমার TutorialsBangla তৈরির উদ্যোগ একটি ব্যার্থ উদ্যোগ হিসেবে মোটা দাগে প্রমাণিত বলা চলে। আমার ইচ্ছা ছিলো তথ্য প্রযুক্তি এবং পড়াশোনার বিভিন্ন বিষয়ে ফ্রী টিউটোরিয়াল এর একটি ভান্ডার হবে TutorialsBangla- সেটা হয়ত সফল হবে না। 

 

 
২০০ এর বেশী ইউনিক আর্টিকেল এই ওয়েবসাইটে ছিলো যা আমি নিজেই ডিলিট করে দিয়েছি। সেগুলোর মধ্যে অল্প কয়েকটি(৭-৮ টি) ছিলো scraped আর্টিকেল অর্থাৎ, সেগুলোতে অন্য ওয়েবসাইট embed করা ছিলো। এছাড়া বাকি সবগুলো ছিলো শতভাগ নিজের লেখা আর্টিকেল। সেগুলোর মধ্যে ৭০-৮০ টি আমি মন দিয়ে লিখেছি, সেগুলো অবশ্যই ভালো মাণের। 
এখনো আমার লেখা সেইসব আর্টিকেল আপনি Techtunes, Somewhereinblog, Tunerpage, Pchelplinebd, lekhaporabd সহ অন্যান্য অনেক ওয়েবসাইটে পাবেন। সবগুলো আমি শেয়ার করি নাই, তবে বেশীরভাগই আমি নিজেই অন্যান্য ওয়েবসাইটে বেশী ভিজিটর পাওয়ার আশায় শেয়ার করে শেষে লিখে দিয়েছিলাম – এই আর্টিকেলটি TutorialsBangla তে এই শিরোনামে এর আগে প্রকাশিত। তা সত্ত্বেও গুগোল এডসেন্স আমার সেই লেখাগুলোকে Scraped(ভালো বাংলা পেলাম না) লেখা কিংবা, মূল্যহীন লেখা মনে করে আমার এডসেন্স এই ওয়েবসাইটের জন্য Disable করে দিয়েছে। আমি সেই ৭-৮ টা আর্টিকেল ডিলিট করে নতুন করে দুইবার আবেদন করার পরেও তারা আমাকে অগ্রাহ্য করেছে।  আমি নিজে অর্থনৈতিক এবং সামাজিকভাবে সক্ষম অবস্থানে থাকলে গুগোলের বিরুদ্ধে মামলা করতাম(মিথ্যাচারের জন্য)। 
আমি প্রতিদিন একটি করে লেখা এই সাইটের মাধ্যমে দেব যা হবে শুধুমাত্র বিসিএস নিয়ে। 
অনেক সময় গুগোল এডসেন্স এরকম ৯০ ডলার বা, তার চেয়ে বেশী অন্য কারো একাউন্টে জমা হওয়ার পরে তার এডসেন্স একাউন্ট Disable করে দেয়, আমি সেদিক দিয়ে ভাগ্যবান যে আমার একাউন্ট এখনো আছে। এটাকে শুভঙ্গরের ফাকি বলা যায়। আজকে আমি সেটা ব্যাখ্যা করবো।

Google কিভাবে শুভংকরের ভূমিকায়

আমি প্রথমেই গুগোলের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি, আমার এই সাইটটি গুগোলের ব্লগারে হোস্ট করা। ওরা আমাকে আনলিমিটেড হোস্টিং ফ্রীতে দিয়েছে(অবশ্যই তাদের ব্যবসার স্বার্থে, তারপরও এটাতে আমি লাভবান)। 
এডসেন্স এ ১ ডলার বা, তার চেয়ে কম টাকা কেউ যখন ইউটিউব বা, ওয়েবসাইটের মাধ্যমে Google এর পলিসি না মেনে ইনকাম করে, গুগোলের উচিত তখনই তার একাউন্ট বাতিল করে দেয়া। কিংবা- ৫/৭ তা আর্টিকেল বা, ভিডিও আপলোড করার পর সেগুলো ঠিকমতো যাচাই করে Monetization দেয়া। ওরা সেটা করে না- যেমনঃ মোশাররফ করিমের নাটকের ভিডিও এখনো দেখবেন ভূলভাল ইউটিউব চ্যানেলে আছে, অনেক কপি করা কনটেন্ট দেখবেন গুগোলের হোস্ট করা ব্লগস্পটে আছে। ওরা নিঃ সন্দেহে সেগুলোতে এড অতীতে দেখিয়েছে। Advertiser দের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে। এবং সবশেষে যখন একজন ক্রিয়েটর নীতিমালা না মেনে প্রায় ১০০ ডলার আয় করে ফেলে, ওরা সেই ক্রিয়েটরের একাউন্ট বাতিল করে টাকাটা নিয়ে নেয়। ফলাফল হচ্ছে Advertiser দের কাছ থেকে যে টাকাটা নিচ্ছে সেটার যে অংশ অর্ধেকের মত হবে যা, Creator কে দেয়ার কথা ছিলো সেই টাকাটা ওদের আর দেয়া লাগছে না। এভাবে মিলিয়ন ডলার দুই নম্বরি করে আয় করা সম্ভব, যেটা গুগোল করছে। 
(আমি জানিনা এটা লেখার পর ওরা আমাকে ফ্রী হোস্টিং দিবে কি না, ওদের সার্চ ইঞ্জিনে আমার লেখা দেখাবে কি না)
ভারতে গুগোলের Street View বন্ধ করে দিয়েছে(তথ্যসূত্র-1). চীনে অনেক সময় গুগোল বন্ধ করা হয়।  আমি আপনাদের অনুরোধ করবো প্রথম আলোর এই লেখাটি পড়ার জন্য- “ভারত কি চায়
 
ভ্যাটম্যান আবুল মালের উচিত ছিলো দেশের প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির উপর ভ্যাট না বসিয়ে এইসব বিদেশী কোম্পানিগুলোর উপর কড়া ভ্যাট বসানোর যাতে এরা সহজে এই দেশে ব্যবসা করতে না পারে।

নিজে ব্যার্থ তো, তাই এইসব বলছেন

আমি আগেও এই ধরণের কথা বন্ধুদের সাথে আলোচনায় বলেছি, কখনো লিখি নাই। আর, আমার এডসেন্স একাউন্ট এখনো আছে, ইউটিউব চ্যানেল আছে যেটাতে সাবস্ক্রাইবার এবং Engagement এবং ভিডিওতে লাইক ভালো পরিমাণে আছে। সেটাতে সময় দিলে খুব সহজেই ভালো টাকা আয় করা যাবে। এছাড়া এডসেন্স এর বাইরে অন্য কিছু Admedia আমি অতীতে ব্যবহার করেছি যখন বাংলা সাইট এডসেন্স সাপোর্ট করতো না। সেগুলোতে টাকা আরো বেশী পাওয়া যায়, শর্ত কম। তবে সেগুলো Adsense এর মত ইউজার ফ্রেন্ডলি না, সেটা সম্ভবও না। 
Green-red নামে দেশী একটি এডমিডিয়া হারিয়ে গিয়েছে, পিপীলিকা নামে একটি সার্চ ইঞ্জিন এখন খুজে পাওয়া যাচ্ছে না। দেশে কোন ভালো Socialmedia কখনোই হয়ে উঠতে পারেনি। ফেসবুক, ইউটিউবের কারণে Techtunes এর মত জনপ্রিয় সাইটের জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়েছে। প্রযুক্তিবিষয়ক অনেক বাংলা সাইট(পুরনো) বন্ধ হয়ে গেছে। ভারতীয় সিনেমার সাথে এই মুহুর্তে সিনেমা বিনিময় কিংবা, যৌথ প্রতারণা নিয়ে আমাদের মধ্যে সচেতনতা আছে, কিন্তু এইসব বিষয়ে নেই। আমরা একজন রাজনীতিবিদ, সরকারী কর্মকর্তা বা, পুলিশ দুর্নীতি করলে তাকে গালাগালি দেই, কিন্তু গুগোল, ফেসবুকের মত কেউ কিছু করলে কিছু বলি না। ফেসবুক কপিরাইটের বারোটা বাজাচ্ছে, গুগোলের সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ দিয়ে আমরা pdf খুজি। আমাদের সব তথ্য ফেসবুক নিচ্ছে, আবার ফেক একাউন্ট খুলতে দিচ্ছে যত ইচ্ছা। 
 
(ভেবেছিলাম শুধু বিসিএস বা, চাকরির প্রস্তুতি নিয়ে লেখার মাঝে সীমাবদ্ধ থাকবো, কিন্তু পারলাম না বলে দুঃখ প্রকাশ করছি)
 
 
তথ্যসূত্রঃ 
  1. https://timesofindia.indiatimes.com/business/india-business/google-street-view-proposal-rejected-by-government/articleshow/63482698.cms
  2. https://en.wikipedia.org/wiki/Google_China
  3. http://green-red.com/
  4. https://www.pipilika.com/
  5. http://techtunes.com.bd/
 

Leave a Reply