Custom Search

বিসিএস প্রস্তুতি: ভূগোল ও পরিবেশ


ভূগোল বিষয়ক প্রাথমিক ধারণা, বিসিএস ভূগোল

Geography শব্দটি প্রথম ব্যবহার করেন গ্রীক ভূগোলবিদ ইরাটসথেনিস। Geo=পৃথিবী Graphy=বর্ণনা, শাব্দিক অর্থে পৃথিবীর বর্ণনাই হল ভূগোল। বিভিন্ন বিশেষজ্ঞরা বিভিন্ন রকম রঙ চড়িয়ে এটাকে বিভিন্নভাবে সংজ্ঞায়িত করেছেন। যারা ভূগোলের ছাত্র এবং ভূগোল বিষয়ের প্রতি যাদের বিশেষ আগ্রহ আছে তারা রিচার্ড হার্টশোন এর ‘Perspective of the Nature of Geography বইটি পড়তে পারেন, জ্ঞান বাড়বে। বিসিএস প্রস্তুতির সহায়ক হিসেবে নিচের ভিডিওটি দেখুন-


প্রাকৃতিক বিষয়াবলি, এর উপর ভিত্তি করে গড়ে ওঠা অর্থনৈতিক অঞ্চল, শিল্প, বানিজ্য, যানবহন ব্যবস্থা, জনসংখ্যা এবং এর বিস্তার, রাজনৈতিক বিষয়াবলি এগুলির কোন কিছুই ভূগোলের আওতা থেকে মুক্ত নয়।

বাংলার চেয়ে ইংরেজী নামগুলোতেই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছি, তাই ভূগোলের শাখাগুলোর নাম ইংরেজীতেই দিলামপরে বাংলাও দিয়েছি কারণ, বাংলা ছাড়া লেখাটা অসম্পূর্ণ মনে হচ্ছিল-

       a)     Physical Geography- প্রাকৃতিক ভূগোল
       b)    Economic Geography- অর্থনৈতিক ভূগোল
       c)     Political Geography- রাজনৈতিক ভূগোল
       d)    Mathematical Geography- গাণিতিক ভূগোল
       e)     Human Geography- মানবিক ভূগোল
       f)     Regional Geography- আঞ্চলিক ভূগোল
       g)     Historical Geography- ঐতিহাসিক ভূগোল
       h)    Plant Geography- উদ্ভিদ ভূগোল
       i)     Zoo Geography- প্রাণী ভূগোল

গাণিতিক, প্রাকৃতিক এবং আঞ্চলিক ভূগোল এই তিনিটি পড়লেই বিসিএসের জন্য যথেষ্ট, কারণ শুধু এই তিনিটিই মাধ্যমিক স্তরের বইয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
বিসিএস এর সিলেবাস অনুযায়ী ভূগোল, পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে মোট ১০ মার্কসের প্রশ্ন প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় আসবে। যে বিষয়গুলো পরীক্ষার আগে বদলে যাবে না ভূগোল তার ভিতরে একটি, তাই এটা গুরুত্ব দিয়ে পড়া উচিত।


তথ্যসূত্রঃ  ডিসেম্বর ২০০৮ সালে প্রকাশিত নবম-দশম শ্রেণীর মাধ্যমিক ভূগোল বই।

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন