Custom Search

খুশকি দূর করার ঔষধ ও প্রাকৃতিক উপায়

Österreich এর Petra র তোলা ছবি

শীতকালে খুশকি দূর করার উপায়

আমাদের চুলের একটা মোটামুটি কমন সমস্যা হচ্ছে খুসকি, এটা ছেলেদের এবং মেয়েদের সবার চুলেই শীতকালে বেশী দেখা যায়। উকুনের মত খুসকি কোন ধরণের লিঙ্গবৈষম্য করে না, আমরা পজিটিভলি ভাবতেই পারি। আজকে আপনাদেরকে খুসকি দূর করার কিছু প্রচলিত সমাধান এবং সেই সাথে আমি নিজে যেভাবে সফল হয়েছি সেই সম্পর্কে ধারণা দেব।

খুসকি তাড়ানোর প্রচলিত কিছু সমাধান

লেবু, মেথি, পেয়াজের রস, কিটোকোনাজল এইরকম আরো কিছু উপাদান বা, ঔষধি উপকরণ যাই বলেন সেটা আছে যেগুলো খুসকি দূর করতে সাহায্য করে। অনেকে লেবুর রস এবং পেয়াজের রস গরম করে মাথায় মাখেন। লেবুর রস মাখার সময় খেয়াল রাখবেন যেন চোখে না যায়। আর যারা পেয়াজের রস মাখবেন তারা যদি চান চোখেও মেখে দেখতে পারেন, স্বাদটা বোধকরি অজানা হয়। আরো অনেক প্রাকৃতিক উপাদান আছে সেগুলোও সার্চ দিলে জানতে পারবেন যা খুসকি দূর করে। শ্যম্পু সমাধানও অনেকে খুজে থাকেন- ক্লিয়ার থেকে কিটোকোনাজল পর্যন্ত।

আমি যে পদ্ধতিতে খুসকিমুক্ত

অতসব প্রাকৃতিক উপাদানের ঝামেলায় না গিয়ে আমি নিয়মিত বিভিন্ন ধরণের শ্যাম্পু ব্যবহার করেছি, ফলাফল খুসকি আছে শীতকালে। এরপর নিতান্তই বাধ্য হয়ে ভাল কোন সমাধান খুজতে লাগলাম এবং জানলাম কোন কোন উপাদাওগুলো খুসকি দূর করে। সিলেক্ট প্লাস নামে এক ধরণের কিটোকোনাজলযুক্ত শ্যম্পু ব্যবহার করতে শুরু করলাম এবং অদ্ভুতভাবে এত বছরের খুসকি দূর হয়ে গেল। অবশ্যই এই কৃতিত্ব কিটোকোনাজলের, যে শ্যম্পুই ব্যবহার করুন না কেন উপাদানটা দেখে নেবেন। এই উপাদানযুক্ত শ্যম্পুগুলোর দামও সাধারণের চেয়ে বেশীই হয়। এরপর আমি মমতাজ হারবালের তুলনামূলক কমদামী লেবুযুক্ত শ্যাম্পু ব্যবহার করেছি। এটা দুই বছর আগের কথা, এখন সাধারণ Anti-dandruff  শ্যম্পু ব্যবহার করি এবং সেটাতেই সফল। 

আমি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে পছন্দ করি বলে ক্লিয়ারের শ্যাম্পু ব্যবহার করি। মোদ্দাকথা হচ্ছে, কিসের শ্যাম্পু সেটা না দেখে কি দিয়ে তৈরি সেটা দেখুন। যদি সেটা আপনার খুসকি দূর করতে সাহায্যকারী উপাদানে তৈরি হয় খুসকির বাপও দূর হবে। শেষ কথাটা যেকোন কিছুর ক্ষেত্রেই কিন্তু সত্যি, উপাদান গুরুত্বপূর্ণ এবং দামের সাথেও যার সম্পর্ক আছে।



0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন