মানবসভ্যতা এবং মানবতার আকন্ঠ নিমজ্জন

ছবির কৃতিত্ব: Iris Ministries Mozambique

আমি বিশ্বমানবতার কথা বলছি

লেখকঃ দ্বিধাবিভক্ত মন
আমরা সব সময় ভাল মানুষ, ভাল কাজ ইত্যাদি সব ভাল খুজি। এই ভাল খুজে পেতে হলে প্রথমে নিজেদের ভাল হতে হবে। সৃষ্টিকুলের জন্মলগ্ন থেকেই একথা সবাই বলে বেড়ায়। কিন্তু কাজের বেলা লবঢঙ্কা। আর ঠিক এজন্যই সারা বিশ্ব মানবতা বিশ্ব নামক ঘরের দেওয়ালের চারিদিকে ঠোকর খেয়ে খেয়ে প্রায় মৃত অবস্থায় ছটফট করছে। মানবসভ্যতার উন্নয়নের লক্ষ্যে আল্লাহতাআলা যুগে যুগে বহু নবী রসুল এমনকি চারটি আসমানী কিতাবও নাজিল করেছে । মানুষকে আল্লাহর হেদায়েত দান প্রাপ্ত হওয়ার জন্য তার ফেরেস্তাগন, নবী-রসুল এবং পরবর্তীতে আলেম ওলামাগন জানপ্রান দিয়ে দিচ্ছে। কিন্তু মানবসভ্যতা দিনেদিনে এখন আরো খারাপের দিকে যাচ্ছে।  

এক আফ্রিকা মহাদেশের অনেকগুলি রাষ্ট্রের দিকে তাকালে বুঝা যায় মানবসভ্যতা কত নিষ্ঠুর অবস্থায় হাবুডুবু খাচ্ছে। মাঝে মাঝে দেখা যায় কিছু আমেরিকান ও ইউরোপিয়ান পুরুষ ও মহিলা সেলিব্রেটি ও ধনী সম্প্রদায় না খেতে পেরে কঙ্কালসার আফ্রিকানদের মূখে খাবার তুলে দিচ্ছে এবং ছবিটাও ফলাও করে মিডিয়াগুলিতে প্রকাশ করছে। লোক দেখানো হউক তবুওতো সেখানে তারা গিয়েছেন এবং তারা খ্রীষ্টান সম্প্রদায়ের লোক। 

আমরা মুসলমান, সনাতন বা হিন্দু এবং বৌদ্ধরা ধর্মীয়ভাবে মানবকল্যানের এত কথা বলে বেড়াই অথচ সেই জায়গাই স্তব্ধ হয়ে আছি। এইসব কথা চিন্তা করলে নিজেকে আশরাফুল মখলুকাত বা সৃষ্টির সেরা জীব হিসাবে পরিচয় দিতে আমার লজ্জাবোধ হয়। 

সবচাইতে বড় কথা বিশ্বমানবতার জন্য একটা সংস্থা আছে যার নাম জাতিসংঘ। সেই জাতিসংঘকে অনেক আগেই গোয়াল ঘর আখ্যায়িত করা হয়ে গেছে।  

বিশ্বে মুসলমানেরা যেভাবে দেশে দেশে অত্যাচারিত নিপীড়িত হচ্ছে তা লিখতে গেলে দিন রাত ২৪ ঘন্টা লিখলেও শেষ করা যাবে না।

0 comments:

Post a Comment