Custom Search

বাংলাদেশ থেকে এমাজনের পণ্য কেনার উপায়

ব্যাকপ্যাক এর সাইট

বাংলাদেশ থেকে Amzon এর পণ্য কেনা যাচ্ছে

এটা নিশ্চয়ই জানেন এমাজন তাদের পণ্য বাংলাদেশে বিক্রি করে না, তবে বিভিন্ন ভাবে অন্য দেশ থেকে পণ্য কিনে এদেশে আনা যায় যা মোটেও সুবিধাজনক না। ব্যাকপ্যাক নামে একটা ওয়েবসাইট আছে যাদের মাধ্যমে আপনি আস্থার সাথে এমাজন থেকে পণ্য কিনতে এবং দেশে আনতে পারবেন। বিকাশ, মাস্টারকার্ড এবং Paypal এ ওরা পেমেন্ট নেয়। আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত একটা ওয়েবসাইট। 
প্রথম আলোতেও এই সাইট নিয়ে প্রতিবেদন লেখা হয়েছিল।

বিকাশে কেন পেমেন্ট নিচ্ছে

যুক্তরাষ্ট্রের সিলিকনভ্যালি থেকে বাংলাদেশী দুই তরুন ব্যাকপ্যাক এর যাত্রা শুরু করে। ওরা যেহেতু বাংলাদেশী তাই বিকাশ ও পেমেন্ট মেথড হিসেবে রেখেছে। ঢাকায় ওদের অফিস আছে, কিছু কিনলে টাকা মার যাবে না। অন্য দেশ থেকে যারা আসে তাদের মাধ্যমে ওরা পণ্য পাঠায়, তাই কাউকে না পাওয়া গেলে দেরী হতে পারে- আপনি চাইলে সেক্ষেত্রে টাকা ফেরত দিয়ে দেবে।

কত সময় লাগবে

আমি একটা মাইক্রোফোন অর্ডার দিয়েছিলাম, ১৫ দিনের মধ্যে পেয়েছি। ক্ষেত্রবিশেষে দেরীও হতে পারে। এ নিয়ে হতাশার কিছু নেই, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ওরা ওদের পণ্য পৌছে দেয় তাদের মাধ্যমে যারা বিভিন্ন দেশে ভ্রমণ করে। মনে করুন কেউ স্পেন থেকে বাংলাদেশে আসল, তার কাছে পণ্য দিয়ে দেবে এবং বিনিময়ে তাকে টাকাও দেয়া হবে।

বাংলাদেশে পাওয়া যায় অন্য দেশ থেকে কেনার কি দরকার

বিদেশে যাদের আত্নীয় স্বজন আছে তাদের অনেক সময় বিভিন্ন জিনিস আনতে বলেন, সেগুলো ব্যাকপ্যাক এর মাধ্যমে আনলে কিন্তু খরচ কমে যাবে। তাছাড়া অনেক প্রযুক্তি পণ্যের দাম এমাজনে বাংলাদেশে বাজার মূল্যের চেয়ে কম। অবশ্যই বেশীরভাগ জিনিসের দামই বাজার থেকে কিনলে কম পড়বে। যা এখানে পাওয়া যায় না, এবং এমাজনে তুলনামূলক দাম কম সেগুলো অর্ডার দিয়ে আনাই ভাল।


একাউন্ট খুললে সুবিধা কি

আমার রেফারেল লিংক থেকে একাউন্ট খুললে আপনার এবং আমার দুজনেরই লাভ। যেহেতু নতুন সাইট তাই প্রচারের জন্য ওরা রেফারেল লিংক থেকে একাউন্ট খুললে ৫০০ টাকা একাউন্টে দেয় শর্ত সাপেক্ষে। শর্তটা হচ্ছে ১৫০০ টাকা বা, তার বেশী টাকার পণ্য কিনলে আপনি ওই ৫০০ টাকা ব্যবহার করতে পারবেন, বাকি ১০০০ টাকা বিকাশে দিতে পারবেন। 
আর আমার লাভ আপনি ১৫০০ টাকার পণ্য কিনলে আমাকেও ৫০০ টাকা একই শর্তে ব্যবহারের সুযোগ দেয়া হবে। অনেক পণ্য পাবেন, দেখে অর্ডার দিন।

0 comments:

Post a Comment